প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ৪

বুধবারটা বিদেশভ্রমণ করেই কেটে গেল, যে কাজে আসা, সে কাজ এখনও শুরুই হল না। আজ বৃহস্পতিবার। কাল বি মজুমদারকে একবার ফোন করে নিয়েছিলাম সন্ধ্যের পরে, উনি বলেছিলেন আজ বেলা এগারোটা থেকে সাড়ে এগারোটার মধ্যে ফোন করতে। কাল মিউনিসিপ্যালিটিতেও বলেছিল, এগারোটা সাড়ে এগারোটার আগে কাজ শুরু হয় না। তো, বাজুক এগারোটা। আজ আর সকাল সকাল ওঠার … More প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ৪

প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ৩

ঘুম ভাঙল একদম ভোরবেলায় – এসির একটানা আওয়াজ ছাপিয়ে ঘরে ঢুকে আসা হাল্কা বৃষ্টির শব্দে। বাইরে বৃষ্টি পড়ছে। উঠে বসলাম। কাল খেয়ে উঠতে উঠতে রাত প্রায় বারোটা বেজে গেছিল, চান করা হয়ে ওঠে নি, সারা গায়ে নোংরা চ্যাটচ্যাট করছে। এসিটা বন্ধ করে উঠে বসলাম। আজ এমনিতে কোথাও কিছু করার নেই, কারণ বি মজুমদার গেছেন বিজেপির … More প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ৩

প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ২

ডিব্রুগড় রাজধানীর স্টপেজ থাকে নিউ আলিপুরদুয়ার জংশনে, এখন ট্রেনে যাওয়া না হলে, আপৎকালে উপায় একটিই থাকে, সেটা হচ্ছে ফ্লাইটের টিকিট কাটা। ফ্লাইট যাবে বাগডোগরা অবধি, সেখান থেকে শিলিগুড়ি এসে, সেইখান থেকে সম্ভব হলে ট্রেন ধরে বা বাস ধরে আলিপুরদুয়ার পৌঁছনো। শিলিগুড়ি থেকে একশো ষাট কিলোমিটার। কিন্তু আজকের টিকিট আজকে কাটতে গেলে যা হয়, সর্বত্র উরিত্তারা … More প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ২

প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ১

নিজে থেকে উদ্যমী না হলেও আজকাল কারণে অকারণে সর্ষেরা এসে পায়ের তলায় জমা হয়ে যায়। তৈরি হয় গল্প, রাস্তার গল্প, মানুষের গল্প। চলার গল্প। সে গল্প নিয়ে দশ বারো পর্বের ধারাবাহিক হয় তো হয় না, কিন্তু যেটুকু হয়, তা-ই বা কম কী? কাজের জগতে আবার একটা সুযোগ এসেছে বিদেশযাত্রার। ইওরোপ। তো, তার ভিসা বানাবার কাজ … More প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ১

অরুণাচলের দেশেঃ নবম ও শেষ পর্ব

পর্ব ১ । পর্ব ২ । পর্ব ৩ । পর্ব ৪ । পর্ব ৫ । পর্ব ৬ । পর্ব ৭ । পর্ব ৮ পাবলিক ট্রান্সপোর্টে চড়ার অভ্যেস আমার একেবারেই নেই, এবারে সে অভিজ্ঞতাটাও হয়ে যাবে। আজ শনিবার। ঠিক এক সপ্তাহ আগে, গত শনিবার ভোররাতে আমি দিল্লি থেকে বেরিয়েছিলাম। আজ অষ্টম দিনে, আমি মিলিটারি হাসপাতালের গেস্টহাউসের … More অরুণাচলের দেশেঃ নবম ও শেষ পর্ব

অরুণাচলের দেশেঃ অষ্টম পর্ব

পর্ব ১ । পর্ব ২ । পর্ব ৩ । পর্ব ৪ । পর্ব ৫ । পর্ব ৬ । পর্ব ৭ আর ঘটনাটা ঘটল তার ঠিক পরেই, এক মিনিটের মাথায়। আসার দিন দিরাং থেকে সকাল সাড়ে সাতটায় স্টার্ট করে বেলা দেড়টা পৌনে দুটো নাগাদ তাওয়াং এসে পৌঁছেছিলাম। রাস্তা ছিল বেশিরভাগটাই চড়াই। আজ বেশির ভাগটাই উতরাই, সময় … More অরুণাচলের দেশেঃ অষ্টম পর্ব

অরুণাচলের দেশেঃ সপ্তম পর্ব

পর্ব ১ । পর্ব ২ । পর্ব ৩ । পর্ব ৪ । পর্ব ৫ । পর্ব ৬ “ও মা তুমি বাঙালি? হেহেহে … এই শুনচো, এই দ্যাখো এ-ও বাঙালি … অ্যাঁ? না না, আমরা কলকাতা থেকে নয়, আমরা এসিচি শিলিগুড়ি থেকে, ঐ যে ও, ওরা এসচে হাওড়া থেকে, আমার ননদ হয় …” খচরমচর শব্দে ঘুম … More অরুণাচলের দেশেঃ সপ্তম পর্ব

অরুণাচলের দেশেঃ ষষ্ঠ পর্ব

পর্ব ১ । পর্ব ২ । পর্ব ৩ । পর্ব ৪ । পর্ব ৫ দমে যাবার বদলে সে ছেলে আরও চাঙ্গা হয়ে গেল। চ্যালেঞ্জ, ইয়েস! খুব ঠাণ্ডায় যাবো, কিন্তু ফ্রস্ট বাইট হবে না, ইয়ো, ব্রো। আজ পঞ্চম দিন। একটা দিন বসে গেলে সত্যিই ভালো হত। কিন্তু দিরাং ঠিক থেকে যাবার মত কোনও জায়গা নয়। একটা দিন … More অরুণাচলের দেশেঃ ষষ্ঠ পর্ব

অরুণাচলের দেশেঃ পঞ্চম পর্ব

পর্ব ১ । পর্ব ২ । পর্ব ৩ । পর্ব ৪ দিল্লি থেকে ফরেনার এসেছে? সে আবার কী কেস? এই দিল্লির নাম্বারওলা বুলেটটা কি তাদেরই? তিন দিনে চলে এসেছি প্রায় দু হাজার কিলোমিটার। আজ একটু বিশ্রাম নিলে ভালোই হত, কিন্তু প্ল্যান বলছে আজ আমাকে দিরাং পৌঁছতে হবে। দূরত্বটা কম – তিনশো চার কিলোমিটার, কিন্তু রাস্তাটা … More অরুণাচলের দেশেঃ পঞ্চম পর্ব

অরুণাচলের দেশেঃ চতুর্থ পর্ব

পর্ব ১ । পর্ব ২ । পর্ব ৩ আমি বাংলায় বললে হয় তো বেটার বুঝত, কিন্তু আসামের এই মুহূর্তে যা হালচাল, বাংলা বলা কতটা সঙ্গত বুঝতে পারছিলাম না ঘুম হচ্ছে না আজকাল ঠিকঠাক। অ্যালার্ম বাজার আগেই তাই জেগে গেছি। উঠে শরীর নাড়িয়ে দেখলাম, না, ব্যথা একেবারে কমেনি ঠিকই, তবে এই তৃতীয় দিনে ইউজড টু হয়ে … More অরুণাচলের দেশেঃ চতুর্থ পর্ব

অরুণাচলের দেশেঃ তৃতীয় পর্ব

প্রথম ও দ্বিতীয় পর্বের পর আমার তখন ডাক ছেড়ে চেঁচাতে ইচ্ছে করছিল রাগে ভোর সাড়ে পাঁচটায় ঘুম ভাঙামাত্র যেটা প্রথম মাথায় এল, সেটা হল, “যাবো না”। একেবারে ইচ্ছে করছে না তৈরি হতে, অসীম একটা শারীরিক আর মানসিক ফ্যাটিগ চেপে বসেছে। কাল রাতে একটা পেনকিলার খেয়েছিলাম, কিন্তু গায়ের ব্যথার বিশেষ উপশম তাতে হয় নি, সেটা একটা … More অরুণাচলের দেশেঃ তৃতীয় পর্ব

অরুণাচলের দেশেঃ দ্বিতীয় পর্ব

প্রথম পর্বের পর সামান আপ খুদ রাখ লিজিয়ে না … প্রথম দিনের বাঁধাছাঁদায় অনেকটা সময় লাগে। দীর্ঘদিনের অনভ্যাস। তার ওপর ন তলার ওপর থেকে সমস্ত লাগেজ পার্কিং পর্যন্ত নিয়ে আসা। এইবারে তাই এটুকু কাজ আমি আগে থেকেই এগিয়ে রেখেছিলাম – আগের দিন শুতে যাবার আগে, এক এক করে সবকটা লাগেজ নিচে নামিয়ে গাড়ির ডিকিতে রেখে … More অরুণাচলের দেশেঃ দ্বিতীয় পর্ব

গান্ধীহত্যায় অন্যতম অভিযুক্ত সাভারকর, কীভাবে নিশ্চিত মৃত্যুদণ্ডের হাত থেকে বাঁচলেন?

“মদনলাল (পাহ্‌ওয়া) এর পরেও তাঁর সহ-চক্রান্তকারীদের প্রতি বিশ্বাসভঙ্গ করেন নি। তিনি নিশ্চিত ছিলেন ওরা আবার চেষ্টা করবে। পুলিশের প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে তিনি আপ্রাণ চেষ্টা করেছিলেন যাতে ওরা যথাসম্ভব বেশি সময় পায়, … তারপর যখন তিনি আন্দাজ করতে পারেন যে ওরা পালাবার জন্য যথেষ্ট সময় পেয়েছে, তখন তিনি পুলিশের কাছে মুখ খোলেন এবং তাঁদের কার্যকলাপের খুব সাদামাটা একটা বিবরণ দেন। এই বিবরণ দেবার সময়ই হঠাৎ করে তিনি বলে ফেলেন যে … তিনি তাঁর সঙ্গীদের সাথে সাভারকর সদনে গিয়েছিলেন, এবং সেখানে তিনি সেই বিখ্যাত রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে স্বচক্ষে দর্শন করে এসেছেন। … More গান্ধীহত্যায় অন্যতম অভিযুক্ত সাভারকর, কীভাবে নিশ্চিত মৃত্যুদণ্ডের হাত থেকে বাঁচলেন?

সাভারকর কীভাবে ‘বীর’ বিশেষণে ভূষিত হলেন?

জনৈক চিত্রগুপ্তের লেখা লাইফ অফ ব্যারিস্টার সাভারকর নামে একটি বই, সাভারকরের ওপর লেখা প্রথম জীবনীমূলক বই। ১৯২৬ সালে এটি প্রকাশিত হয়। এই বইতে সাভারকরকে এক সাহসী বীর নায়ক হিসেবে দেখানো হয়। এবং সাভারকরের মৃত্যুর দুই দশক পরে, যখন সাভারকরের লেখাপত্রের অফিশিয়াল প্রকাশক বীর সাভারকর ফাউন্ডেশন ১৯৮৭ সালে এই বইয়ের দ্বিতীয় সংস্করণ প্রকাশিত করে, তখন ফাউন্ডেশনের সম্পাদক রবীন্দ্র রামদাস জানান, বইটির লেখক, “চিত্রগুপ্ত, স্বয়ং সাভারকর ব্যতীত আর কেউ নয়”।

এই আত্মজীবনীতে, থুড়ি, চিত্রগুপ্ত-লিখিত জীবনীতে, সাভারকর পাঠকদের উদ্দেশ্যে জানান যেঃ “সাভারকর আজন্ম এক সাহসী নায়ক, ফলাফলের তোয়াক্কা না করেই তিনি যে কোনও কাজের দায়িত্ব নিয়ে তা সম্পূর্ণ করতে পিছপা হতেন না। সরকারের যে নিয়ম বা আইন তাঁর কাছে সঠিক বা বেঠিকভাবে অন্যায় মনে হত, তৎক্ষণাৎ সেই অশুভ নিয়মকে সমাজের বুক থেকে চিরতরে মুছে ফেলার জন্য তিনি যে কোনও পন্থা অবলম্বন করতে দ্বিধা বোধ করতেন না।” … More সাভারকর কীভাবে ‘বীর’ বিশেষণে ভূষিত হলেন?

ইতিহাসের দলিলে লেখা আরএসএসের দেশপ্রেমের সাক্ষ্য

বেড়ানোর গল্প শেষ হবার পরে পরে এবার একটু বিষয় বদলাই। অনেক দিন আগে থেকেই লিখতে চেয়েছিলাম, কিন্তু সময়াভাব, এবং বেড়ানোর গল্পের ধারাবাহিকতা নষ্ট হয়ে যাবে বলে এই লেখায় এতদিন হাত দিতে চাই নি। দেশে এখন ভারতীয় জনতা পার্টির শাসন। এই মুহূর্তে দেশের উনিশটি রাজ্য বিজেপি-শাসিত, এবং আজ, পনেরোই মে, কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচনের ফল বেরোনর দিন … More ইতিহাসের দলিলে লেখা আরএসএসের দেশপ্রেমের সাক্ষ্য

দুই দেশ, ছয় রাজ্য, দুই চাকা, পাঁচ হাজার একশো কিলোমিটার ও এক পাগলঃ পর্ব ১৮

আগের পর্বের পর ৫ই নভেম্বর, সপ্তদশ দিন বেড়ানোর পালা শেষ। আবার গতানুগতিক জীবন মাত্র দুদিনের দূরত্বে। ফিরতে হবে। এবারে যা ঘোরা হল, স্মৃতিতে অনেকদিন ধরা থাকবে প্রতিটা দিন, আলাদা করে। কিলোমিটারের পর কিলোমিটার বৈচিত্র্যে ভরা জায়গা পেরিয়ে চলা, কখনও প্রচণ্ড একঘেয়ে, কখনও বিপদসঙ্কুল। আগামী দুদিনে আমাকে ফিরতে হবে দেড় হাজার কিলোমিটার আরও। একটানা রাস্তা, সমতল, … More দুই দেশ, ছয় রাজ্য, দুই চাকা, পাঁচ হাজার একশো কিলোমিটার ও এক পাগলঃ পর্ব ১৮