প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ৫

শেষ পর্ব লিখে উঠতে অনেক দেরি হয়ে গেল, ঠাঁইনাড়া হয়েছি সদ্য, লেখার পরিবেশ তৈরি করে উঠতে পারছিলাম না। অনেকেই পেছন দরজায় এসে তাগাদা দিয়ে গেছেন বারবার, তাঁদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী।  এই পর্বে কিছু অশ্লীল শব্দটব্দ আছে। আপনার অস্বস্তির কারণ হতে পারে। খিস্তিতে অসুবিধা থাকলে এই পর্বটা পড়বেন না। বিনীত অনুরোধ।  শনিবার। ঘুম ভেঙে গেছে সকালেই, খানিকক্ষণ … More প্রমাণপত্রের জন্ম এবং সর্ষেদানারা – পর্ব ৫

অরুণাচলের দেশেঃ চতুর্থ পর্ব

পর্ব ১ । পর্ব ২ । পর্ব ৩ আমি বাংলায় বললে হয় তো বেটার বুঝত, কিন্তু আসামের এই মুহূর্তে যা হালচাল, বাংলা বলা কতটা সঙ্গত বুঝতে পারছিলাম না ঘুম হচ্ছে না আজকাল ঠিকঠাক। অ্যালার্ম বাজার আগেই তাই জেগে গেছি। উঠে শরীর নাড়িয়ে দেখলাম, না, ব্যথা একেবারে কমেনি ঠিকই, তবে এই তৃতীয় দিনে ইউজড টু হয়ে … More অরুণাচলের দেশেঃ চতুর্থ পর্ব

অরুণাচলের দেশেঃ তৃতীয় পর্ব

প্রথম ও দ্বিতীয় পর্বের পর আমার তখন ডাক ছেড়ে চেঁচাতে ইচ্ছে করছিল রাগে ভোর সাড়ে পাঁচটায় ঘুম ভাঙামাত্র যেটা প্রথম মাথায় এল, সেটা হল, “যাবো না”। একেবারে ইচ্ছে করছে না তৈরি হতে, অসীম একটা শারীরিক আর মানসিক ফ্যাটিগ চেপে বসেছে। কাল রাতে একটা পেনকিলার খেয়েছিলাম, কিন্তু গায়ের ব্যথার বিশেষ উপশম তাতে হয় নি, সেটা একটা … More অরুণাচলের দেশেঃ তৃতীয় পর্ব

দুই দেশ, ছয় রাজ্য, দুই চাকা, পাঁচ হাজার একশো কিলোমিটার ও এক পাগলঃ পর্ব ৩

একটা ছোট্ট কালীপুজোর প্যান্ডেল, আর তার সামনে একদল ছেলেবুড়োজোয়ানমদ্দ খুব নাচছে, খুব। অথচ গলির ভেতরটা পুরো নিঃশব্দ। কোথাও কোনও মাইক বা বক্স বাজছে না, নীরবতার মধ্যে, কারুর মুখে কোনও কথা নেই, কিন্তু নেচে যাচ্ছে সবাই। রাস্তা জুড়ে। মোটামুটি একই ছন্দে। কেসটা কী? আমি যে একটা লাগেজবোঝাই মোটরসাইকেল নিয়ে হেডলাইট জ্বালিয়ে প্রায় তাদের সামনে এসে পড়েছি, তাদের জাস্ট কোনও খেয়াল নেই। একটু এগোবার চেষ্টা করতেই একটা বাচ্চা ছেলে নাচের ঝোঁকে পুরো আমার সামনের চাকার ওপর এসে হুমড়ি খেয়ে উলটে পড়ল, অমনি সবাই সজাগ হয়ে গেল, এই বাপন, কী করিস? দেখতেসিস না মোটরসাইকেল আসতেসে? … More দুই দেশ, ছয় রাজ্য, দুই চাকা, পাঁচ হাজার একশো কিলোমিটার ও এক পাগলঃ পর্ব ৩